Bangladesh Community Association of Nova Scotia

Positive Social Space For All Bangladeshis In Nova Scotia

BDCANS AGM and New Council for 2021-2022 Term

The BDCANS Council is pleased to inform you that following are the members of the new Council for next two years 2021-2022:-

  • Chairperson :- Mehdi Karim
  • Member (Secretariate):- Khaled Hasan
  • Member (Finance):- Masud Morshed
  • Member (Cultural Affairs):- MD Jahedul Alam
  • Member (Sports and Social Affairs):- MD Amir Hasib Khan

We would like to invite members, our dedicated volunteers and community members to the AGM to know about BDCANS activities in promoting our linguistic and cultural diversity in Nova Scotia since its inception in February 2017.

Date & Time: Saturday, January 30, 2021; 3.30 PM – 5 PM

Zoom Meeting Link: https://us02web.zoom.us/j/89860266150?pwd=SzlpQWp6aW9iUjdLL0l0TTRZcmpaZz09Agenda:1

Agenda: (1) Call to Order, (2) Council Report 2019-20203, (3) Annual Financial report 2019-20204, (4) Volunteer Award (5). Introduction of members (6) Introduction to new Council and charge hand over

কানাডার নোভাস্কসিয়ায় ঈদুল আজহা উদযাপিত

উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আনন্দঘন পরিবেশে বাংলাদেশ কমিউনিটি অ্যসোসিয়েশান অব নোভাস্কসিয়ার  উদ্যোগে গত পহেলা আগষ্ট কানাডার হ্যালিফ্যাক্সে  অনুষ্ঠিত হল ঈদ আনন্দ অনুষ্ঠান।

প্রবাসী বাঙালিদের এই উৎসব ক্ষণিকের জন্য হলেও সবাইকে মনে করিয়ে দেয় সম্প্রীতি, সাম্যের, দেশীয় সংস্কৃতি ধারনের প্রয়োজনীয়তা। এর মাধ্যমে শিশুরা পরিচিত হতে পেরেছে বাংলাদেশের ঈদ উৎসবের সাথে।

আনন্দঘন পরিবেশে ঈদ উদ্যাপন করে প্রবাসীরা কিছুক্ষণের জন্য যেন বাংলাদেশেই ফিরে গিয়েছিলেন। প্রবাসী বাংলাদেশিরা আত্মীয় পরিজনের সঙ্গে ঈদে কাছাকাছি থাকতে না পারার কষ্টটা হয়তো এই অনুষ্ঠানে কিছুটা লাঘব করেছেন।

বিডিকান্স এর এই উদ্যোগ মনে করিয়ে দেয় আপনজনদের সঙ্গে সাক্ষাত, বন্ধু-বান্ধবরে সঙ্গে আড্ডা আর টানা উদ্যাপন। ছুটির দিনটিতে সবাই পরিচিতদের সঙ্গে উৎসব জমিয়ে তোলার চেষ্টা করেন।

বাংলাদেশ কমিউনিটি এসোসিয়েশান অব নোভাস্কসিয়ার প্রতিটি ব্যক্তিবর্গ সৌহার্দ আর সম্প্রীতি বজায় রেখে, অসাম্প্রদায়িকতা অটুট রেখে, মনের কালিমা দূর করে, হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে, একে অপরের সাথে বুক মিলিয়ে ঈদ উৎসব ভাগাভাগি করে নেয়ার নিরন্তন প্রচেষ্টা তারা বুকে ধারণ করেছেন আনন্দ এই ঈদ  উৎসবে। প্রবাসে তারা “বাংলাদেশ” তথা আমাদের ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক মূল্যবোধ তুলে ধরছেন।

প্রবাসীরা বলেন, চলার পথে রাজধানী ঢাকা শহরের মতো এখানে কোন যানজট না থাকলেও এখান থেকে ইচ্ছে করলেই বাস আর ট্রেনের টিকিট কেটে দেশের বাড়িতে যাওয়া যায় না। দেখা হয় না মমতাময়ী মা বাবা পরিবার পরিজনদের সাথে। তাই তো তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে আপনজনদের খোঁজ খবর আর মুঠোফোনে তাদের ডিজিটাল হাসির ছবি দেখেই পালন করতে হয় প্রবাসীদের ঈদ উৎসব।

https://samakal.com/probas/article/200832638/-%E0%A6%A8%E0%A7%8B%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%95%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%AF%E0%A6%BC-%E0%A6%88%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%B2-%E0%A6%86%E0%A6%9C%E0%A6%B9%E0%A6%BE-%E0%A6%89%E0%A6%A6%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%AA%E0%A6%BF%E0%A6%A4

কানাডায় প্রবাসীদের ব্যতিক্রম ধর্মী ঈদ উদযাপন

করোনার মধ্যেও অত্যন্ত উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আনন্দঘন পরিবেশে বাংলাদেশ কমিউনিটি এসোসিয়েশন অব নোভাস্কসিয়ার উদ্যোগে ২৪ মে গাড়ি প্যারেড ঈদ উৎসব পালিত হয়।

এই উৎসব ক্ষণিকের জন্য হলেও সবাইকে মনে করিয়ে দেয় সম্প্রীতি, সাম্যের, দেশীয় সংস্কৃতি ধারণের প্রয়োজনীয়তা। অংশগ্রহণকারী সব পরিবার কানাডার করোনা নিয়ম মেনে নিজ নিজ গাড়িতে করে প্যারেডে অংশগ্রহণ করেন আগে থেকে দেওয়া দিক নির্দেশনা অনুযায়ী।

হালিফাক্স লাইব্রেরী থেকে শুরু হয়ে ঐতিহাসিক শিটাডেল হিল হয়ে ওয়াটার ফ্রন্ট এ যেয়ে শেষ হয়। কভিড ১৯ প্রবাসীদের ঈদের আনন্দ কেড়ে নিতে পারে নি। যতটুকু সম্ভব ঈদের আনন্দটুকু দিতে চেষ্টা করেছে বাংলাদেশ কমিউনিটি এসোসিয়েশন অব নোভাস্কসিয়া।

সবাই নির্দিষ্ট দুরত্বে থেকে সমবেতভাবে ‘ঈদ মোবারক’ বলেছেন, রঙবেরঙ এর বেলুন উড়িয়ে, ঈদের ড্রেস পরে ঈদ উৎসব উদযাপন করেছেন। শিশুরা পরিচিত হতে পেরেছে বাংলাদেশের ঈদ উৎসবের সঙ্গে। আনন্দঘন পরিবেশে ঈদ উদযাপন করে প্রবাসীরা কিছুক্ষণের জন্য যেন বাংলাদেশেই ফিরে গিয়েছিলেন। প্রবাসী বাংলাদেশিরা আত্মীয় পরিজনের সঙ্গে করোনার কারণে ঈদে কাছাকাছি থাকতে না পারার কষ্টটা হয়তো এই অনুষ্ঠানে কিছুটা লাঘব করেছেন। প্রবাসে তারা বাংলাদেশের ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক মূল্যবোধ তুলে ধরছেন।

সংগঠনের সেক্রেটারি মো. গোলাম কিবরিয়া তালুকদার বলেন, ‘করোনার কারণে সবাই যখন ঘরে বন্দি, ঈদ যখন বিবর্ণ ঠিক তখন করোনার মধ্যে আতংকিত না হয়ে বরং সচেতন হয়ে আনন্দ উপভোগ করেছি। দেশটির নিয়ম মেনে সুশৃঙ্খলভাবে করোনার মধ্যেও ব্যতিক্রম ঈদ পারেড নোভাস্কশিয়ার সকল বাঙালির তথা অন্য কমিউনিটির লোকদের কাছে অনুকরণীয় আর স্মরণীয় হয়ে থাকবে।’

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকালীন সাবেক চেয়ারপারসন ড. আযহারুল হক বলেন, ‘কভিড আমাদের ঈদ কেড়ে নিতে পারেনি। বর্তমান বাস্তবতার অনন্য পরিস্থিতিতে আমাদের একটি অনন্য ঈদ উদযাপন ছিল এটি। নিরাপদে থাকুন, ইতিবাচক থাকুন।’

সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত জুম মিটিংয়ের সময় সংগঠনের সভাপতি ড. আহসান হাবিব, মেম্বার ফাইনান্স মেহেদি করিম, সংস্কৃতি সম্পাদক রেজায়ি রাব্বি, কার প্যারেড অনুষ্ঠানের সমন্বয়ক জাবেদ রাব্বানি, হাসিব খান বাংলাদেশ কমিউনিটি এসোসিয়েশন অব নোভাস্কসিয়ার পক্ষ থেকে আগত সবাই কে প্রাণঢালা অভিনন্দন, কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

জুম মিটিং এ সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে সবাই ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে মেতে ওঠেন নানা গল্প-আড্ডায়, যেখানে আড্ডার মূল বিষয় ছিল করোনা। অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকেই শারীরিক সুস্থতাকে গুরুত্ব দিয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রয়োজন না হলে সবাইকে ঘরে থাকার অনুরোধ জানান।

https://samakal.com/probas/article/200524670/%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A7%80%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%AE-%E0%A6%A7%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A7%80-%E0%A6%88%E0%A6%A6-%E0%A6%89%E0%A6%A6%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%AA%E0%A6%A8

বিডিক্যান্স-এর উদ্যোগে হ্যালিফ্যাক্স এ পালিত হল “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস”

গত ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ কানাডার নোভা স্কসিয়ায় বাংলাদেশ কমিউনিটি অ্যাসোসিয়েশান অফ নোভা স্কসিয়া (বিডিক্যান্স)-এর উদ্যোগে পালিত হল “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস”। প্রবাসী বাংলাদেশীদের সাপ্তাহিক ছুটি বিবেচনায় উক্ত অনুষ্ঠানটি ২১ শে ফেব্রুয়ারীর পরিবর্তে ২২শে ফেব্রুয়ারী রোজ শনিবার হ্যালিফ্যাক্স কেন্দ্রীয় লাইব্রেরী মিলনায়তনে উদযাপিত হয়।

International Mother Language Day 2 - Halifax

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলা একাডেমী পুরস্কারপ্রাপ্ত বাংলাদেশের প্রখ্যাত কবি ও সাহিত্যিক, মনোগ্রাহী টেলিভিশন উপস্থাপক ও অনুবাদক আসাদ চৌধুরী, বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা নাদিম ইকবাল, জনাব এ্যন্ডি ফিল ম্যোর (এম,পি হ্যালিফ্যাক্স পার্লামেন্ট), লিও এ, গ্ল্যাভাইন (কমিউনিটি, কালচার ও হ্যেরিটেজ মন্ত্রী), টনি ইন্স (আফ্রিকান নোভাস্কসিয়া কল্যাণ মন্ত্রী), লিসা ব্ল্যাকবার্ণ (ডেপুটি মেয়র, হ্যালিফ্যাক্স রিজিওনাল মিউনিসিপালিটি), হ্যালিফ্যাক্স ও নোভা স্কসিয়ার প্রবাসী বাংলাদেশীগণ এবং অন্যান্য কানাডিয়ান গণ্যমান্যব্যক্তিবর্গ ।

International Mother Language Day 5 - Halifax

অনুষ্ঠানের সূচনা হয় অতিথিবরণ এবং ভাষা মেলা উদযাপনের মাধ্যমে। হ্যালিফ্যাক্সের বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষজনের অনেকগুলো সংগঠনের উপস্থিতে ভাষামেলায় ১০টির বেশি স্টলে সাংস্কৃতিক বিনিময় ও প্রদর্শনী চলে। মি’কমা সংস্কৃতির সূচনা কৃত্যের মাধ্যমে মূল অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। তারপর বিডিক্যান্সের আজহারুল হক ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস এবং বিডিক্যান্সের অগ্রযাত্রা বিষয়ক বক্তব্য রাখেন। কমিউনিটি, কালচার ও হ্যেরিটেজ মন্ত্রী লিও এ, গ্ল্যাভাইন নোভা স্কসিয়া সরকারের পক্ষ হতে বিশেষ বক্তব্য উপস্থাপন করেন। হ্যালিফ্যাক্স রিজিওনাল মিউনিসিপালিটির পক্ষ থেকে মাতৃভাষার গুরুত্ব সম্পর্কে বক্তব্য রাখেন লিসা ব্ল্যাকবার্ণ (ডেপুটি মেয়র, হ্যালিফ্যাক্স রিজিওনাল মিউনিসিপালিটি)।

International Mother Language Day 3 - Halifax

উক্ত অনুষ্ঠানের মঞ্চে শহীদ মিনারের আবয়ব নির্মিত হয়েছিল। সকলে মিলে “আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারী” গান গাইতে গাইতে শহীদ মিনারে পুষ্পতাবক অর্পণ করে। উপস্থিত কানাডিয়ানরাও সকলের সাথে একাত্মতা ঘোষনা করেন এবং শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তাবক অর্পণ করেন। এরূপ শ্রদ্ধাপ্রকাশে কানাডিয়ানরাও উপস্থিত বাংলাদেশীদের সাথে আবেগে আপ্লূত হয়ে পড়েন। তারপর উপস্থিত বিশেষ বক্তাগণ মাতৃভাষার গুরুত্ব সম্পর্কে বক্তব্য রাখেন। সকল বক্তাগণ তাদের বক্তব্যে বাংলাভাষা এবং ভাষা শহীদদের স্মরণ করেন।

International Mother Language Day 1 - Halifax

তারপর বিডিক্যান্সের ফারহানা ফেরদৌসের দিকনির্দেশনায় পরিবেশিত হয় বিডিক্যান্স সাস্কৃতিক সন্ধ্যা। উক্ত সাস্কৃতিক অনুষ্ঠানে শিশুদের উল্লেখযোগ্য অংশগ্রহণ আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয়- বাংলাদেশীরা পৃথিবীর যেখানেই থাকুকনা কেন, বাঙ্গালীর হৃদয় সদা লালণ করে বাংলার সংস্কৃতি। অনুষ্ঠানে পরিবেশিত রবীন্দ্রসংগীত “ও আমার দেশের মাটি” সবাইকে মন্ত্রমুগ্ধ করে দেয়। তারপর একটি ইরানী সাংস্কৃতিক সংঘের উদ্যোগে ফারসি ভাষায় সঙ্গীত পরিবেশিত হয়। বাংলার জনপ্রিয় কবি আসাদ চৌধুরীর অসাধারণ আবৃত্তি সকলকে বিমোহিত করে। অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে বাংলাদেশের ডকুমেন্টারী চলচ্চিত্র বিদ্যাভুবন প্রদর্শিত হয়।

International Mother Language Day 8 - Halifax

এভাবেই বিডিক্যান্স সংশ্লিষ্ট সকলের আক্লান্ত পরিশ্রম ও উদ্যোগে কানাডার নোভা স্কসিয়ায় বাংলাদেশ ও কানাডার এরকম সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য বিনিময়, প্রদর্শন ও লালন সম্ভব হচ্ছে। এতে করে আমাদের সংস্কৃতি বিশ্বের দরবারে সম্মানের সহিত স্থান পাচ্ছে এবং আমরাও বাংলাদেশী হিসেবে সম্মানের সাথে নিজের দেশকে বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরতে পারছি।

International Mother Language Day 7 - Halifax

– মোহাম্মদ আলী খান (অর্ণব)হ্যালিফ্যাক্স, কানাডা

http://probashikantho.ca/2020/02/%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%a1%e0%a6%bf%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%b8-%e0%a6%8f%e0%a6%b0-%e0%a6%89%e0%a6%a6%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a7%8b%e0%a6%97%e0%a7%87-%e0%a6%b9/?fbclid=IwAR2-87lEuc5RPWOlz5lr5irHcsEtrUOXr1im2k64byDplB5hip-K_g6Pj3g

বিজয় দিবস ২০১৯ উদযাপনের অনুষ্ঠান সূচি

As you know, BDCANS is going to celebrate the victory of our nation. If you have registered or confirmed your participation with the registration team, please visit registration kiosk upon arrival at the venue. No new registration at the venue. Your timely arrival and cooperation will be highly appreciated. Please find below the event schedule:

Venue: Lebrun Community Centre, 36 Holland Avenue, Bedford, NS, B4A 1E5
Schedule:
11:30 – 12:00 : Reception and display on victory day
12:00 – 13:00 : Kids cultural events
13:00 – 14:00 : Lunch
14:00 – 15:00 : Cultural Events
15:00 – 15:00 : Refreshment (tea & desserts) & closing

Thanks,
Jabed Rabbany
on Behalf of BDCANS Bijoy Dibosh 2019 Celebration Committee

 

Email us at:

bdcans2017@gmail.com

Halifax, NS

Please subscribe to our newsletter to keep up to date with our latest news and events.